শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫৬ অপরাহ্ন

গাইবান্ধা পৌরসভার ২০তম মেয়র মতলুবর রহমান ও কাউন্সিলর এবং সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র এবং কাউন্সিলর আজ শপথ নিলেন।

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩৮২ বার পঠিত

গাইবান্ধা পৌরসভার ২০তম মেয়র হিসেবে শপথ নিয়েছেন মতলুবর রহমান ও নির্বাচিত কাউন্সিলররা। সোমবার রংপুর জেলা পরিষদ মিলনায়তনে রংপুর বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল ওহাব ভূইয়া তাদের শপথ বাক্য পাঠ করান। নবনির্বাচিত মেয়র মতলুবর রহমানের সাথে গাইবান্ধা পৌরসভার ১,২, ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর আফরোজা খানম মিতা, ৪,৫, ৬ নং ওয়ার্ডের মমতা সরকার, ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সাবিনা ইয়াসমিন, ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শেখ শাহীন, ২নং ওয়ার্ডের মহিউদ্দিন আহমেদ রিজু, ৩নং ওয়ার্ডের কামাল হোসেন, ৪নং ওয়ার্ডের রকিবুল হাসান সুমন, ৫নং ওয়ার্ডের আব্দুস সামাদ রোকন, ৬নং ওয়ার্ডের শহিদ আহমেদ, ৭নং ওয়ার্ডের আবু বকর সিদ্দিক স্বপন, ৮নং ওয়ার্ডের আসাদুজ্জামান হাসু ও ৯নং ওয়ার্ডের হুমায়ুন কবির স্বপন শপথ নেন। উল্লেখ্য; গত ১৬ জানুয়ারী গাইবান্ধা পৌরসভা নির্বাচনে ১২ হাজার ৩শ’ ৯ ভোট পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নারিকেল গাছ প্রতিক নিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন মতলুবর রহমান । তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী রেল ইঞ্জিন প্রতিকের আনোয়ার উল সরোয়ার সাহিব পান ৭ হাজার ৯শ’ ৭০ ভোট। পৌরসভার সদ্যবিদায়ী ১৯তম মেয়র এ্যডভোকেট শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবির মিলন পান ৭ হাজার ৩শ’ ১ ভোট। ১৯২৩ সালে প্রতিষ্ঠিত গাইবান্ধা পৌরসভায় ১৯৭৪ সালে প্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন খন্দকার আজিজুর রহমানের পর ৯৭ সালে মোহাম্মদ খালেদ দ্বিতীয় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ১৯৮২ সালে পৌরসভার তৃতীয় চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন নির্মল চন্দ্র সরকার একই বছর চতুর্থ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেন আব্দুল মালেক পরের বছর ৮৩ সালে পঞ্চম চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণ করেন কফিল উদ্দিন আহমেদ ৮৪ সালে আব্দুর রশিদ সরকার ষষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেন। সপ্তম চেয়ারম্যান হিসেবে ৮৮ সালে দায়িত্ব নেন কে এম আবুল হাসান, ৮৯ সালে অষ্টম চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পান আব্দুর রশিদ সরকার, একানব্বই সালে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেন মফিজুর রহমান খোকা, একই বছর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন হাবিবুর রহমান বাবুল, ওই বছরই গাইবান্ধা পৌরসভায় প্রশাসকের দায়িত্ব পান জেসি পন্ডিত পরের বছর ৯২ সালে প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব নেন এ কে এম মনিরুল ইসলাম তারপর একই বছর প্রশাসক হিসেবে পৌরসভার চেয়ারে বসেন আব্দুল আজিজ, ৯৩ সালে গাইবান্ধা পৌরসভা ১৪তম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন ওয়াহিদুজ্জামান খান তিতু, ৯৯ সালে ১৫ তম চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেন আনোয়ার উল হাসান সবুর ২০০৪ সালে ১৬তম চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। এরপর ২০০৮ সালে মেয়র নির্বাচিত হন আনোয়ার উল হাসান সবুর। পরপর তিনবার নির্বাচিত আনোয়ারুল হাসান সবুরকে পরাজিত করে ২০১১ সালে আঠারোতম মেয়রের দায়িত্ব নেন শামসুল আলম এরপর ২০১৬ সালে ১৯ তম মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করেন অ্যাড. শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবির মিলন, সবশেষ ২০২১ সালের ১৬ জানুয়ারীর নির্বাচনে ২০তম মেয়র নির্বাচিত হন মতলুবর রহমান। দুই বছর পর ২০২৩ সালে শতবর্ষ পুরণ করবে গাইবান্ধা পৌরসভা। একই দিনে সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুর রশিদ রেজা সরকার ডাবলু, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ১,২,৩ ওয়ার্ডের রুবিয়া বেগম, ৪,৫,৬ ওয়ার্ডের রত্না রানী, ৭,৮,৯ ওয়ার্ডের মনোয়ারা বেগম, ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছামিউল ইসলাম, ২নং ওয়ার্ডের মাজেদুর রহমান প্রামানিক রুনু, ৩নং ওয়ার্ডের জামিউল ইসলাম জমু, ৪নং ওয়ার্ডের মাহবুবুর রহমান, ৫নং ওয়ার্ডের মশিউর রহমান বিল্পব, ৬নং ওয়ার্ডে লাবলু মিয়া, ৭নং ওয়ার্ডের শাহীন মিয়া, ৮নং ওয়ার্ডের হাবিবুর রহমান ও ৯নং ওয়ার্ডের বাবলু কুমার সরকার শপথ নেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..